ঢাকা, সোমবার   ১৪ জুন ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

বারহাট্টায় অসহায় নারীর পাশে দাঁড়িয়েছেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:১৪, ১৮ মে ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পঞ্চাশোর্ধ আরতা বেগম। স্বামী পরিত্যক্তা এই নারীর আপন বলতে কেউ নেই। নেই কোনো সহায়-সম্বলও। থাকেন নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার বাসাউড়া গ্রাম সংলগ্ন বারহাট্টা-কাকুরা সড়কের পাশের একটি কুঁড়েঘরে। মানুষের কাছে হাত পেতেই করেন দিনাতিপাত।

এই অসহায় নারীর পাশে দাঁড়িয়েছেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আশরাফ আলী খান খসরু। রোববার (১৬ মে) সরেজমিনে গিয়ে ঘর করে দেয়ার জন্য তার হাতে দিয়েছেন দুই বান্ডেল টিন, নগদ আট হাজার টাকা ও তিন মাসের খাদ্য সামগ্রী।

ঢেউটিন ও টাকা দিয়ে ওই নারীকে একটি ঘর নির্মাণ করে দেয়ার জন্য একই গ্রামের ছমেদ আলীসহ কয়েকজন ব্যক্তিকে দায়িত্ব দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

আরতা বেগমের বাবার বাড়ি বারহাট্টার চন্দ্রপুর গ্রামে। ১৭ বছর ধরে তিনি সিংধা ইউনিয়নের বারহাট্টা-কাকুরা সড়কের পাশে বাসাউড়া এলাকায় একটি ডেরায় বসবাস করেন। ওই খুপরি ঘরটি ছমেদ মিয়া উদ্যোগী হয়ে সড়ক ও তার জমিতে তুলে দেন।

ছমেদ মিয়া বলেন, ‘আরতা বেগম খুবই মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এই সংসারে তার আপন বলতে কেউ নেই। ১৭ বছর ধরে তিনি বাসাউড়া রাস্তার পাশে বাস করছেন।’

প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান বলেন, ‘শনিবার রাতে একজন যুবক হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে এই অসহায় নারীর কথা আমাকে জানান। পরে খোঁজ নিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে আরতা বেগমকে আমার ব্যক্তিগত ও প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে কিছু সহায়তা করা হয়েছে।’

এদিকে, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাঈনুল হক ওই নারীর জন্য পাঁচ হাজার টাকা অনুদানের ঘোষণা দেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়