ঢাকা, সোমবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৮

শীতে দাড়ি রাখলে কাটবে অবসাদ!

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৯, ২৩ নভেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দাড়ি একজন পুরুষের ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করে। তবে দাড়ি রাখার ব্যাপারে একেক পুরুষ একেক রকম শখ রাখেন। কিছু কিছু পুরুষ দাড়ি রাখতে পছন্দ করেন, আবার কিছু পুরুষ ক্লিন শেভ পছন্দ করেন। তবে দাড়ি নিয়ে একেক সময় একেক ফ্যাশন চলে। বর্তমানে পুরোপুরি সাফ গালের চেয়ে দাড়িওয়ালা মুখ পুরুষ-ফ্যাশনে বেশি জনপ্রিয়।

প্রশ্ন হচ্ছে, দাড়ি কি শুধুই চেহারার সৌন্দর্যের জন্য প্রয়োজন? না কি এর আর কোনো গুণও আছে? জানলে অবাক হবেন যে, দাড়ি রাখার বেশ কয়েকটি গুণ রয়েছে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক, সেগুলো কী কী- 

** দাড়ির আস্তরণ গালের ত্বককে ভালো রাখে। ত্বকের সংক্রমণ কমায়। ত্বকে বয়সের ছাপ কম পড়ে।

** দাড়ি না কামালে, তার গোড়া থেকে এক ধরনের তেল নির্গত হতে থাকে। সেটি ত্বককে আর্দ্র রাখে।

** নিয়মিত দাড়ি কামালে ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। দাড়ির গোড়াগুলো মোটা হতে থাকে এবং সেই ছিদ্রপথে বেশি পরিমাণে ময়লা এবং ক্ষতিকারক জীবাণু ভেতরে যায়। এগুলো সবই ত্বকের ক্ষতি করে।

** এর পাশাপাশি দাড়ির আরও একটি গুণ রয়েছে। এর প্রভাব পড়ে মনেও। শীতকালে বেলা ছোট হয়ে আসে। অনেকেই এই সময়ে বিষণ্ণ থাকেন। যাদের অবসাদের সমস্যা আছে, তাদের সমস্যা বাড়ে। বিশেষ করে পশ্চিমের দেশে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। সমীক্ষা বলছে, যে সব পুরুষ দাড়ি রাখেন, তাদের বিষণ্ণতা এবং মনখারাপের পরিমাণ তুলনায় কম হয়। শীতের গোড়া থেকে দাড়ি রাখার অভ্যাস শুধু মাত্র ঠাণ্ডা থেকে গালকে রক্ষা করার জন্য নয়, মন ভালো রাখার জন্যও হতে পারে। বহু যুগ থেকে হয়তো তেমন অভ্যাস তৈরি হয়েছে মানুষের। এমনই মত অনেক বিজ্ঞানীর।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়