ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||  শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

পাথরবিহীন রেললাইন বসানো হচ্ছে

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২১:৫১, ৩ জুলাই ২০২২  

পদ্মা সেতুর সঙ্গে রাজধানীর রেল যোগাযোগ দ্রুত সংযুক্ত করতে ঢাকা থেকে মাওয়া অংশের কাজে এখন বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। পদ্মা সেতুর দুই প্রান্তের রেল লিঙ্ক প্রকল্পে রেল স্টেশন, ভায়াডাক্ট, রেলসেতু ও রেললাইনের কাজ চলছে পুরোদমে। সাড়ে ৩৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এই অংশে কাজ চলছে হরদম। চীনা ঠিকাদার সিআরইসি রেললাইন, রেলস্টেশন ও রেল সেতু নির্মাণ করছে সেনাবাহিনীর সিএসির তত্ত্বাবধানে। সেতুর সঙ্গে রাজধানীর রেল যোগাযোগ দ্রুত সংযুক্ত করতে ঢাকা থেকে মাওয়া অংশের কাজে বিশেষ গুরুত্ব¡ দেয়া হচ্ছে। এই অংশের পলাশপুর এলাকায় শুরু হয়েছে পাথরবিহীন রেললাইন বসানোর কাজ।

প্রকৌশলীরা জানান, ক্রেনে করে ভায়াডাক্টের ওপরে লোহার রেললাইন তোলা হচ্ছে। লোহার গেজবাফল, ইলাস্টিক ক্লিপ, ফাইবারের ইন্সুলেটার ও ফাসনার কানেক্টর দিয়ে আটকে দেয়া হচ্ছে স্লিপারের সঙ্গে।

ঢাকা থেকে যশোর ১৭২ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রকল্প শেষ হবে ২০২৪ সালে। আর পদ্মা সেতু দিয়ে ঢাকা-ভাঙ্গা রেললাইন চালুর কথা রয়েছে চলতি বছরে ১৬ ডিসেম্বর। কাজ চলছে তিন সিফটে। সিএসি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ‘সিআরইসি’ চীনা ঠিকাদার প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

পদ্মা সেতু রেললিঙ্ক প্রকল্পের পরামর্শক মেজর মোঃ ইশতিয়াক আল-আজম বলেন, রেললিঙ্ক প্রকল্পের সকল রেলস্টেশন, ভায়াডাক্ট, মেজর ব্রিজ, মাইনর ব্রিজ, আন্ডারপাস, কালভার্ট সবকিছুর কাজ চলছে। আমরা আশাবাদী আমরা আমাদের লক্ষ্যকে সামনে রেখে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা যথাসময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ করতে পারব ইনশাআল্লাহ।

সেতুর ঢাকা অংশে মাওয়া থেকে রাজধানী পর্যন্ত রেলপথের ৩৯ দশমিক ছয় তিন কিলোমিটার অংশের অগ্রগতি ৫০ শতাংশের বেশি। রেললিঙ্ক প্রকল্পের ঢাকা অংশে ১৬ দশমিক ছয় কিলোমিটার ভায়াডাক্টের মধ্যে সাড়ে ১০ কিলোমিটারে স্প্যান বসে গেছে। এখন বসছে পাথরবিহীন রেললাইন।

15

সর্বশেষ
জনপ্রিয়