ঢাকা, শনিবার   ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ১৬ ১৪২৮

ফের করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা নিউইয়র্কে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:১৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে ফের বেড়ে চলেছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। এ পরিস্থিতিতে নিউইয়র্কের গভর্নর দুর্যোগপূর্ণ (জরুরি) অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

সংক্রমণের হারে বৃদ্ধি ও হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা দ্রুত বেড়ে যাওয়ার উল্লেখ করে প্রদেশে জরুরি অবস্থার ঘোষণা করেন তিনি।

তবে এখনো করোনার উদ্বেগজনক ধরন ওমিক্রন নিউইয়র্কে শনাক্ত হয়নি। জানা গেছে, ৩ ডিসেম্বর থেকে গভর্নরের আদেশ কার্যকর হবে এবং তা ১৫ জানুয়ারি ২০২২ পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

গভর্নরের নির্দেশের শিরোনামে বলা হয়েছে, নিউইয়র্কে বিপর্যয়জনিত জরুরি অবস্থা ঘোষণা।

নির্দেশে বলা হয়েছে, ‘আমি নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোচুল। সংবিধান ও নিউইয়র্ক রাজ্যের আইনে প্রদত্ত অধিকারের ভিত্তিতে নির্বাহী আইনের অনুচ্ছেদ ২ বি-র ধারা ২৮ অনুসারে আমি দেখেছি, নিউইয়র্ক রাজ্যে একটি বিপদ হাজির হয়েছে। এ জন্য প্রভাবিত স্থানীয় প্রশাসন পর্যাপ্তভাবে প্রতিক্রিয়া অসমর্থ এবং আমি আগামী ২০২২ এর ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত রাজ্যে দুর্যোগপূর্ণ (জরুরি) অবস্থার ঘোষণা করছি’।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে নিউইয়র্কে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই প্রদেশে নতুন করে ৫ হাজার ৭৮৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। করোনা মহামারি শুরু তেকে এ পর্যন্ত নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ৫৮ হাজার জন। সবমিলিয়ে এখনও পর্যন্ত নিউইয়র্কে আক্রান্তর সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখ। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা ২৩ লাখ ২৬ হাজার। নিউইয়র্কে অ্যাকটিভ আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৪ লাখেরও বেশি।

উল্লেখ্য, এরই মধ্যে চোখ রাঙাচ্ছে করোনার নয়া ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’। দক্ষিণ আফ্রিকাসহ কয়েকটি দেশে এই ভ্যারিয়েন্টের সন্ধান মিলেছে। এই অবস্থায় পরিস্থিতি মোকাবিলায় তটস্থ বিভিন্ন দেশ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, প্রাথমিক গবেষণায় দেখা যায়, অনেক বেশিবার এই ভাইরাস মিউটেট করেছে এবং এর মধ্যে কয়েকটি উদ্বেগজনক। 

সর্বশেষ
জনপ্রিয়